Binod কে? এবং কেন এটি ইন্টারনেটে এত ভাইরাল?

Binod কে:-আপনি নিশ্চয়ই দেখেছেন যে #binod ইন্টারনেটে প্রায় দুই থেকে তিন দিন ধরে ট্রেন্ড করছে এবং লোকেরা মারাত্মকভাবে এর অর্থ কি তা জানার জণ্য সবারই একটা কৌতুহল , মজার চিত্রটি, 

তাহলে আপনিও ভাবছেন যে এই  বিনোদ কে? এবং কেন এটি ইন্টারনেটে এত ভাইরাল? তাই আজ আমরা "বিনোদ" উপরের আলোচনা করবো কেন এতো ভাইরাল (binod) কিওয়ার্ড।
Binod কে? এবং কেন এটি ইন্টারনেটে এত ভাইরাল?

বন্ধুরা, এই # বিনোদটি এতটাই ভাইরাল হয়ে গেছে যে এটি ২-৩ দিন ধরে টুইটারে ট্রেন্ড হয়ে চলেছে এবং যেখানেই আপনি ইন্টারনেটে দেখেন, আপনি একটি বাক্য দেখতে পাবেন যা বিনোদ-[binod] এবং লোকেরাও প্রশ্ন তুলছে বিনোদ কে? 

এবং কেন এটি ইন্টারনেটে এত ভাইরাল? ঠিক যেমনটি আপনি কয়েক মাস আগে দেখেছেন যে কীভাবে জেসিবি ইন্টারনেটে ট্রেন্ড করছে যা কোনও যুক্তিযুক্ত ছিল না এবং লোকেরা # জিসিবি_কি_খুদাইয়ের মতো জেসিবি গুগল সার্চ করে যেন পুরো ইন্টারনেট জুড়ে এটি চলছে। “বিনোদ” ট্রেন্ডিং।

Binod কে? Who is binod?

Binod Ke;-বন্ধুরা, আপনি কীভাবে জানতে চান যে বিনোদ কে, এই শব্দটি থেকে এটি পরিষ্কার যে এটি কারও নাম।

তাহলে কেন এই লোকেরা ইউটিউব, টুইটার, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামে পাগলের মতো বিনোদ ভাগ করে নিচ্ছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় # বিনোদ লিখেও বিনোদ কে, কে জানে না তা সবার বোধগম্য।  যদি কোনও ইউটিউবার বা কোনও সামাজিক মিডিয়া প্রভাবক কোনও ভিডিও বা পোস্ট আপলোড করে থাকেন তবে তার নীচে আসার বেশিরভাগ মন্তব্য “বিনোদ” নামে।

বন্ধুরা, যদি আপনি এর কারন সম্পর্কে কথা বলেন, তবে এর কোনও কারণ নেই, যদি ইন্টারনেটে কিছুটা ভাইরাল হয় তবে লোকেরা এটি ভাইরাল করতে শুরু করে এবং এটি সবার চোখে দেখা শুরু করে, সোশ্যাল মিডিয়া সবচেয়ে বড় অসুবিধা। এটির কোনও অর্থ না থাকলেও এখানে যে কোনও কিছু ভাইরাল হতে পারে।

বিনোদ(BINOD) কেন ইন্টারনেটে এত ভাইরাল হচ্ছে?


Guys স্লেয় পয়েন্ট নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল  এটি একটি Roasted চ্যানেল এই চ্যানেলটি কাজ মানুষের অদ্ভুত চরিত্র অভ্যাস দ্বারা উপহাস করা হয়েছে 15 জুলাই, 2020-এ, তিনি কেন ভারতীয়  Comments শিরোনামে একটি ভিডিও আপলোড করেছেন।

এই ভিডিওতে তিনি জানিয়েছেন যে কীভাবে ভারতে লোকেরা ভিডিওটিতে অদ্ভুত মন্তব্য করে এবং তা Roast করে বিনোদ থারুর এই জাতীয় ব্যক্তির একটি মন্তব্যে দেখা গেছে যে তিনি Comments  নিজের নাম বিনোদ লিখেছেন এবং 7 জন লোক এসে এটিকে পছন্দ করেছেন এবং এই ভিডিওটি খুব ভাইরাল হয়েছে, এটি 6 মিলিয়ন ভিউ পেয়েছে, এটি বিনোদের binoder খেলা ছিল।

আস্তে আস্তে ইউটিউব ভিডিও নিয়ে ইউটিউবে প্রত্যেকেই প্রতিটি ভিডিওতে মন্তব্য করতে শুরু করে।বিনোদ বিনোদ তারপরে অনেক ইউটিউবার এটিতে একটি ভিডিওও বানিয়ে দেয়, তাদের ভিডিওটি ইউটিউবে ভাইরাল হওয়ার পরে ভাইরালও হয়ে যায়। 

এটি ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে এবং এমন একটি সময় ছিল যখন বিনোদ পুরো ইন্টারনেট জুড়ে আলোচিত হতে শুরু করে এবং এই টুইটারটি ফেসবুকে ট্রেন্ড শুরু করে।

এবং বর্তমান সময়ে  করোন ভাইরাসের নামের চেয়েও বেশি লোক বিনোদকে স্মরণ করছেন, সম্ভবত লোকেরা করোনার ভাইরাসকে ভুলে গেছে এবং অনুসন্ধান করছে যে “বিনোড কে”{who is binod}

এবং এখন মানুষ ইন্টারনেট ভিউ পাওয়ার আশায় বিনোদয়ের নামে হাজার হাজার ফানি মিমি ভিডিও তৈরি করছে তাদের কিছু আয়ের আশায় , আপনি কোনও সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে গেলেও আপনি সেখানে বিনোদকে দেখতে  পারবেন।

আপনার এই পোস্টটি যথাসম্ভব শেয়ার করা উচিত যাতে সবাই জানেন যে বিনোদ কে?  এবং কেন এটি ইন্টারনেটে এত ভাইরাল?

মুলকথা হলো:-

ইউটিউব, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম, ফেসবুক যেটায় ওপেন করেন না কেনো সেখানেই “বিনোদ” লেখাটি পেয়ে যাবেন। বর্তমানে একটি Trending কমেন্টর নেম হচ্ছে গিয়া BINOD। তো আপনারা সবাই কিন্তু বিনুদ নামটা শুনেছেন।এবার অনেকই আছেন বিনোদ ব্যপারটা নিয়ে অজানা, যে বিনোদ ব্যাপার টা কি? আবার অনেকেই আছেন বিনুদ সম্পর্কে ব্যাপারটা মুটামোটি জানেন।

আর যারা জানেন না তাদের কে আজ আমি বুজিয়ে বলবো যে বিনুদ ব্যাপারটি একচুয়াল কি বা কোথা থেকে এচ্ছে বা কেস টা কি।

তো- দেখুন সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো-কোনো একটা বিষয় ট্রেনডিংগে চলে, তো তারই একটা অংশ হচ্ছে বিনোদ(binod)।এখন প্রশ্ন এই trending টা শুরু হয়েছে কোথা থেকে,ইন্ডিয়ায়  ইউটিউবে একটি চ্যানেল আছে “সেলি পয়েন্ট”নামে যাদের Subscriber ২ মিলিয়ন উপরে।

তো ২ মিলিয়ন সাবস্ক্রাইবার মানে তাদের কিন্তু অনেক বেশি audience রয়েছে। রিছেন্টলি প্রায় ২ সপ্তাহ আগে ওরা একটা ভিডিও তৈরি করেছিল “ইউটিউবের ফানি কমেন্ট নিয়ে” তো সেখানে অনেকেই ফানি কমেন্ট করে এবং সেখানেই একটা কমেন্ট ভেসে ওঠেছিল সেটার নাম হচ্ছে binod। 

সেই কমেন্টটি করেছিল বিনোদ ধারু নামে এক লোক, তখন তারা তাদের ভিডিওতে ফানি ওয়েতে কমেন্টি প্রেজেন্টেশন করে। তারা যখন এটাকে প্রেজেন্ট করে তাদের যে ভিউয়ারস রয়েছে সেলিপয়েন্টর তারা সেটাকে দেখে, তখন অন্য যে ভিউয়ার আছে তারাও বিনোদ লেখা শুরু করে।

তো একচুয়ালি বিনুদ যে রয়েছে প্রতেক ইউটিউবারদের চ্যানেলে গিয়ে কমেন্ট সেকশনে বিনোদ লিখতো বা কোনো লাইভ স্টেম হলে সেখানে গিয়ে বিনোদ লিখতো কারন তার নামই যে বিনোদ রে বাবা। তো সেখান থেকে বিনুদের সৃষ্টি হয়েছে প্রতেক কথায় কথায় binod কথাটা উঠে আছে।

এখন লোকেরা বাংগো করে whatsappকেই মেজেছ করলে হাই পরিবর্তে বিনোদ লিখতো।
এমনকি ফেসবুক স্টেটাস টুইটার #হাস টেগে সবাই এই নাম ব্যবহার করছে। তাছারা আগে কোনো ভিডিও কমেন্ট সেকশনে সবাই লিখতো আমাকে সাবস্ক্রাইব করুন আমিও আপনাকে সাবস্ক্রাইব করবো। কিন্তু বর্তমানে কমেন্ট সবাই #binod লিখে।

তাই এখন যেই ইউটিউবে ভিডিও তৈরি করছে তার হেড লাইনে বা নিচে বিনোদ লেখাটি ইউচ করছে। এমনকি মোস্ট পপুলার ইউটিউবার টেকনিক্যাল গুরুজি সেই তার একটা ভিডিওতে বলেছে বিনোদ-বিনোদ, যত ইউটিউবার আছে সবাই বিনোদ বলা টা স্টাট করেছে।

তারমানে বিনুদ কথাটি বা নাম টি trending রয়েছে, এবার যে আসল বিনোদ সে কিন্তু এতো নামের মাঝে হারিয়ে গেছে এটা দুংখের বিষয় বলতে পারেন।

এই নামে হাজার চ্যানেল তৈরি হয়তাছে কারন তাদের ধারনা এই নামে চ্যানেল বানালে সার্চে তার চ্যানেল আসবে এবং অনেক ভিউ আসবে। সেই আসায় আমি এই পোস্ট টা করলাম।

আমাদের শেষ কথাঃ


বন্ধুরা আশা করছি আপনাদের মনে বিনোদ #binod নামের যে কনফিউজড ছিল সেটা বুঝতে পারছেন পোস্ট টা ভালো লাগলে আপনার বন্ধুর মাঝে শেয়ার করুন বিনোদ বিষয় টা তাকে জানানোর জন্য।

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post