ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট বা ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম জেনে নিন-Step By Step

ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট /ডিএক্টিভ করার নিয়ম:-পৃথিবীর সবথেকে জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট হচ্ছে ফেইসবুক,জেনে রাখুন (ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম)
এবং সারা জীবনের জন্য [ফেসবুক আইডি ডিজেবল করার নিয়ম]।
Also Read :-


ফেসবুক আইডি ডিলিট : পৃথিবীর সবথেকে জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট হচ্ছে ফেইসবুক,এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা কোটি কোটি সেটা আমরা সবাই জানি। 

একটি ফেইসবুক একাউন্ট ওপেন করা খুব সহজ,কিন্তু অ্যাকাউন্ট ডিলিট করা একটু কষ্টকর।আমাদের মধ্যে অনেক fb ইউসার আছে জিনরা একের অধিক একাউন্ট খুলে বিভিন্ন কারনে,কিন্তু ডিলিট করার সময় অনেকেই সমস্যায় পড়তে হয়,

তাই এই আর্টিকেলে বিস্তারিত ছবি দিয়ে ফেসবুক আইডি নষ্ট করার উপায় টি বলে দেব,কিভাবে আপনি মোবাইল ও কম্পিউটারে  করবেন অথবা চিরতরে ফেসবুক বন্ধ করতে পারবেন।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট বা ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম জেনে নিন-

আমি অনেক গুলো আর্টিকেল দেখছি যারা,ডাইরেক্ট লিংক দিয়ে দিয়েছে একাউন্ট ডিলিট করার।কিন্তু তার সমস্যা হচ্ছে,এখানে আপনি কিছুই শিখতে পারবেন না,ভবিষ্যতে আপনাকে কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে হলে আপনি নিজে পারবেন না।

কিন্তু আমি এখানে ছবির সাহায্যে প্র্যাকটিক্যাল করে দেখিয়েছি যারফলে আপনি নিজেই  আপনার একাউন্ট ডিলিট করতে পারবেন।

আজ আমি আপনাদের মাঝে দুটি উপায়ই শেয়ার করব?তাহলে চলুন দেখে নিয়ে যাক তাহলে-

ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট করার প্রথম পদ্ধতি?

ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ | অনেক নতুন ফেসবুক ব্যবহারকারী আছেন, যাহারা একাউন্ট ভাল ভাবে খুলতে পারে না আবার খুলতে পারলেও নিজের পছন্দমত নামে খুলেন না। এভাবে অনেক গুলো একাউন্ট খুলে ফেলেন।এখন নিজের নাম্বার দিতে অনেক গুলো ফেসবুক একাউন্ট হয়ে যায়। 

তারপর মনে বলে সব একাউন্ট আজীবনের জন্য ডিলিট করতে ইচ্ছে হয়।ফেসবুক একাউন্ট মুছে ফেলা খুবই সহজ।

ফেসবুক একাউন্ট মুছে ফেলার জন্য এই লিংকটিতে ক্লিক করুন।এখানে ক্লিক করার পর আপনি দুটি অপশন পাবেন তা হচ্ছে আপনি ফেসবুক আইডি ডিলিট করতে চান নাকি ডিএকটিভ করতে চান।
এখানে ক্লিক করার পর আপনি দুটি অপশন পাবেন তা হচ্ছে আপনি ফেসবুক আইডি ডিলিট করতে চান নাকি ডিএকটিভ করতে চান।

উপরের পিকচার টি লক্ষ্য করুন?

আপনি যে কাজটি করতে চান সে অনুযায়ী ক্লিক করুন।এরপর সাবমিট করুন।এবার ১৪ দিন সময় নিবে আইডি টি পুরোপুরি ডিলিট হওয়ার জন্য।

দ্বিতীয় প্রক্রিয়া-ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করার নিয়ম?


যদি আপনিও একজন Facebook user, তাহলে অবশই জানেন যে “Facebook” কি এবং কিভাবে ব্যবহার করতে হয়।তবে, আজকে আমরা ফেসবুক নিয়ে একটি বিশেষ সমস্যা এবং তার সমাধান নিয়ে কথা বলবো আজকে আমরা জানবো, “কিভাবে ফেসবুক আইডি ডিলিট করতে হয় ?”

ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট করার এমনিতে যেকোনো কারণ থাকতে পারে।হতে পারে, পড়াশোনা নিয়ে কিছু সমস্যা হচ্ছে বা যেকোনো অন্য ব্যক্তিগত কারণ।তাছাড়া, কিছু দিন আগেই Facebook এর ওপরে data leak বা ডাটা চুরি নিয়ে বিভিন্ন তর্ক বিতর্ক হওয়ার ফলে, অনেকেই ফেসবুক এর ওপরে ভরসা করতে পারছেননা।

তাই, নিজের ফেসবুক একাউন্ট পার্মানেন্টলি ডিলেট করার, এটাও একটা কারণ থাকতে পারে।সে যাই হোক, আমরা অনেক সহজে আমাদের [ফেসবুক একাউন্ট ডিলিট] করে নিতে পারি।একাউন্ট ডিলিট করার নিয়ম ও উপায় অনেক সহজ এবং সোজা।তবে, এই ক্ষেত্রে আপনি আপনার কম্পিউটার বা স্মার্টফোনে থাকা Facebook mobile app, ব্যবহার করে নিজের fb আইডি ডিলিট বা ডিএক্টিভেট করে নিতে পারবেন।

মনে রাখবেন, ফেসবুক আইডি ডিলিট করার নিয়ম এমনিতে দুই ধরণের রয়েছে।প্রথম, আপনারা নিজের Facebook account সম্পূর্ণ ভাবে পার্মানেন্টলি ডিলিট করে নিতে পারবেন।এবং, দ্বিতীয় প্রক্রিয়া ব্যবহার করে “Temporary Facebook Account Deactivate” করে নিতে পারবেন।

এর মানে, কেবল কিছু সময়ের জন্য আপনার ফেসবুক একাউন্ট বন্ধ হয়ে থাকবে।তবে, আপনি যখন খুশি তখন আবার ফেসবুক এক্টিভেট করে ব্যবহার করতে পারবেন।তাই, আপনি আপনার প্রয়োজন হিসেবে, নিজের Facebook account delete বা deactivate করে নিতে পারবেন।

ই আর্টিকেলে আমি আপনাদের “একাউন্ট ডিলিট” এবং “একাউন্ট ডিএক্টিভেট করা“, দুটোই মাধ্যম এর ব্যাপারে বলবো।

Facebook deactivate এবং delete এর মাঝে কি পার্থক্য রয়েছে ?

চলুন নিচে আমরা জেনে নেই, একাউন্ট ডিএক্টিভেট এবং ডিলিট করার নিয়ম গুলি কি কি এবং এদের মাঝে মূল পার্থক্য গুলি কি কি।যদি আপনি আপনার fb একাউন্ট ডিএক্টিভেট করছেন তাহলে –
  • আপনি যেকোনো সময় নিজের একাউন্ট টি আবার এক্টিভেট (reactivate) করিয়ে নিতে পারবেন।
  • ফেসবুকে অন্যান্য লোকেরা আপনার timeline দেখতে পারবেননা।
  • আপনাকে ফেসবুকে কোনো মতেই খুঁজে পাওয়া যাবেনা।
  • তবে, এই ক্ষেত্রে কিছু অন্যান্য তথ্য অন্যরা খুঁজে পেতে পারবেন। যেমন, Facebook messenger এ পাঠানো আপনার মেসেজ।
  • এই মাধ্যমে আপনার আইডি কেবল কিছু সময়ের জন্য deactivate হয়ে থাকবে, যেটাকে আবার যেকোনো সময় reactivate করিয়ে ব্যবহার করতে পারবেন।
এবং, এই নিয়ম ব্যবহার করলে চিরতরের জন্য পার্মানেন্টলি ফেসবুক ডিলিট হবেনা।উদাহরণ স্বরূপে,
Students রা final exam এর সময়, Facebook ব্যবহার করার থেকে দূরে থাকতে চান।তাই, exam শেষ হওয়া অব্দি, তারা নিজের ফেসবুক আইডি ডিএক্টিভ করে, এর থেকে দূরে থাকতে পারবেন।তাছাড়া, exam শেষ হওয়ার পর আবার account re-activate করে ফেসবুক ব্যবহার করতে পারবেন।

যদি আপনি, ডিলিট ফেসবুক একাউন্ট অপশনের ব্যবহার করছেন – 
  • এই নিয়ম ব্যবহার করলে, আবার কোনো ভাবেই একাউন্ট reactivate করানো যাবেনা।
  • একবার account deletion প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়ে গেলে, নিজের একাউন্ট এর সাথে জড়িত কোনো রকমের information, data বা contacts ঘুরিয়ে পাবেননা।
  • Account deletion এর জন্য request দেয়ার পর, প্রায় ১৫ দিন থেকে ১ মাসের সময় আপনার কাছে থাকবে, নিজের একাউন্ট ঘুরিয়ে পাওয়ার জন্য।
  • আপনি চাইলে, সেই ১৫ দিন থেকে ১ মাসের ভেতরে নিজের একাউন্টে আবার লগইন করে, একাউন্ট ডিলিট হওয়ার প্রক্রিয়াটি বন্ধ করাতে পারবেন।
তাই, যদি আপনি সম্পূর্ণ ভাবে এবং চিরকালের জন্য নিজের একাউন্ট ডিলিট করতে চাচ্ছেন, তাহলে “account delete” এর প্রক্রিয়াটি ব্যবহার করে,”ফেসবুক আইডি পারমানেন্টলি ডিলিট” করতে পারবেন।

মোবাইলের মাধ্যমে ফেসবুক আইডি ডিলিট করার নিয়ম

এমনিতে, ওপরে আমি আপনাদের যা বললাম Fb account delete করার ২ টি নিয়ম বা উপায় রয়েছে, যেগুলি আমরা মোবাইল বা কম্পিউটার থেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি।এখানে, account deactivation এর option রয়েছে, যেটা ব্যবহার করলে, account delete করার পরেও আবার সেটাকে ভবিষ্যতে reactivate করতে পারবেন।এবং, “Delete account” এর option রয়েছে, যেটা ব্যবহার করলে, আপনার একাউন্ট সম্পূর্ণ ভাবে চোর কালের জন্য ডিলিট হয়ে যাবে।

এই ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে একাউন্ট আবার এক্টিভেট করতে পারবেননা।তাই, নিচে আমি একাউন্ট ডিলিট করার যেগুলি উপায় বা স্টেপ গুলির ব্যাপারে বলবো, সেখানে দুটোই option আপনারা দেখতে পাবেন।এবং, নিজের প্রয়োজন হিসেবে option গুলি বেছে, account delete বা deactivate করে নিবেন।

নিচে দেওয়া স্টেপ গুলি ফলো করে, মোবাইল থেকে ফেসবুক ডিলিট করতে পারবেন।
নিচে দেওয়া স্টেপ গুলি ফলো করে, মোবাইল থেকে ফেসবুক ডিলিট করতে পারবেন।
Step ১. 
সবচে আগেই আপনার নিজের স্মার্টফোনে গিয়ে Facebook mobile app ওপেন করতে হবে এবং সেখানে লগইন করতে হবে।
Step ২.
এখন, আপনার ফেসবুক মোবাইল এপ এর দান দিকে একেবারে ওপরের দিকে থাকা “3 line option icon“ এ ক্লিক করতে হবে।এতে, আপনার মোবাইলে একটি menu ওপেন হয়ে যাবে এবং অল্প নিচের দিকে স্ক্রল করলেই “settings & privacy” অপসন দেখতে পাবেন।এই settings & privacy লিংক বা অপশনে ক্লিক করতে হবে।
Step ৩.
Settings & privacy অপশনে ক্লিক করার পর আপনারা আবার “settings” এর একটি অপসন বা লিংক দেখবেন, যেখানে ক্লিক বা ট্যাপ করতে হবে।
Step ৪.
এখন আপনারা settings মেনুতে অল্প নিচের দিকে স্ক্রল করে গেলেই “account ownership & control” এর একটি অপসন দেখবেন যেখানে ক্লিক করতে হবে।
Step ৫.
এবার, দ্বিতীয় অপশনে আপনারা “Deactivation & Deletion” এর একটি অপসন দেখতে পাবেন যেখানে ক্লিক বা ট্যাপ করুন।
Step ৬.
শেষে, এখন আপনারা সোজা ভাবে দুটো অপসন দেখতে পাবেন।
  • Deactivate account 
  • Delete account 
তবে, কোন অপসনটি সিলেক্ট করবেন, সেটা সম্পূর্ণ আপনার ওপরে নির্ভর করবে।
দুটো অপশনের কাজ আমি ওপরে আপনাদের বলে দিয়েছি।যেহেতু, আমরা একাউন্ট সম্পূর্ণ ভাবে ডিলিট করতে চাচ্ছি, তাই “Delete account” অপশনে ক্লিক করুন এবং নিচে “continue to account deletion” অপশনে ক্লিক করুন।
Step ৭.
শেষে আপনারা একটি ফাইনাল পেজ দেখতে পাবেন যেখানে আপনাকে আপনার ফেসবুক একাউন্টের সাথে জড়িত তথ্য ও ডাটা ডাউনলোড করার অপসন দেওয়া হবে।

“Download your information” অপশনে ক্লিক করে আপনার একাউন্ট এ থাকা “photos”, “videos” বা অন্যান্য ডাটা “download” করে নিতে পারবেন।তবে, যদি আপনি প্রয়োজন মনে করেন কেবল তখন এই স্টেপ করবেন।প্রয়োজন না হলে, ডাটা ডাউনলোড করার কোনো প্রয়োজন নেই।
Step ৮.
এখন, এই একি পেজে একেবারে নিচে দিকে, “Delete Account” এর অপসন দেখবেন।সোজা ভাবে “delete account” অপশনে ক্লিক করতে হবে।
Step ৯.
Delete account অপশনে ক্লিক করার পর, পরবর্তী পেজে আপনার থেকে আপনার ফেসবুক পাসওয়ার্ড চাওয়া হবে।সঠিক ভাবে নিজের ফেসবুক পাসওয়ার্ড দিয়ে দেওয়ার পর, আপনার ফেসবুক প্রোফাইল ডিলিট করার জন্য একটি request ফেসবুকের কাছে চলে যাবে।
Step ১০.
মনে রাখবেন, একাউন্ট ডিলিট করার জন্য সফলতা পূর্বক request পাঠানোর পর, ৩০ দিনের ভেতরে নিজের একাউন্টে লগইন করবেননা।তবে, লগইন করলে আপনার একাউন্ট আবার re-activate হয়ে যাবে।

তাছাড়া, account deletion request করার ৩০ দিন পর, আপনার ফেসবুক প্রোফাইল সম্পূর্ণ ভাবে ডিলিট হয়ে যাবে।তাহলে, ওপরে দেওয়া স্টেপ গুলি ভালো করে এপলাই করলে, আপনারা নিজের মোবাইল থেকে Facebook এর app এর মাধ্যমে account delete করতে পারবেন।


কম্পিউটার দিয়ে কিভাবে ফেসবুক আইডি ডিলিট করব?

কম্পিউটার দিয়ে কিভাবে ফেসবুক আইডি ডিলিট করব|চলুন এখন আমরা সেই দ্বিতীয় নিয়ম বা উপায় এর বিষয়ে জেনে নেই, যেখানে কম্পিউটারের মাধ্যমে নিজের ফেসবুক একাউন্ট পারমানেন্টলি ডিলিট করা যাবে।

তবে, এই বিষয়টি মনে রাখবেন যে, যদি একবার একাউন্ট পারমানেন্টলি ডিলিট করে ফেলার পর, আবার কোনো ভাবেই সেটা ঘুরিয়ে পাবেননা।
তাহলে চলুন স্টেপ গুলি জেনে নেওয়া যাক|নিচে দেওয়া স্টেপ গুলি ভালো করে দেখে নিন – 

চলুন এখন আমরা সেই দ্বিতীয় নিয়ম বা উপায় এর বিষয়ে জেনে নেই, যেখানে কম্পিউটারের মাধ্যমে নিজের ফেসবুক একাউন্ট পারমানেন্টলি ডিলিট করা যাবে।
Step ১. 
সবচে আগেই, নিজের কম্পিউটারে একটি ব্রাউজার ওপেন করে তাতে ফেসবুক খুলে লগইন করে নিন।
Step ২. 
এবার, ফেসবুকের একেবারে ওপরে দান দিকে থাকা “down arrow icon” এ ক্লিক করুন। তারপর, আপনি কিছু options দেখবেন, যেখান থেকে “settings” এর অপসন টিতে ক্লিক করতে হবে।
 Step ৩.
এখন বাম দিকে থাকা অপসন গুলির মধ্যে, তৃতীয়তে থাকা “your Facebook information” অপশনে ক্লিক করুন। 
Step ৪.
এবার একেবারে নিচে থাকা “Deactivation & Deletion” অপশনে ক্লিক করতে হবে। 
Step ৫.
শেষে, আপনারা দুটি অপসন দেখবেন, যেখান থেকে “Permanently delete account” অপশনের বাছাই করে নিচে “continue to account deletion” বাটনে ক্লিক করতে হবে। তারপর আবার পরের পেজে “Delete account” বাটনে ক্লিক করতে হবে। 
Step ৬.
এবার আপনার থেকে আপনার একাউন্ট পাসওয়ার্ড দেওয়ার জন্য বলা হবে। আপনি সোজা ভাবে নিজের ফেসবুক একাউন্ট পাসওয়ার্ড দিয়ে নিচে “continue” বাটনে ক্লিক করুন তারপর আবার “Delete account” এ ক্লিক করুন।

এরপর, হয়ে যাবে আপনার ফেসবুক প্রোফাইল সম্পূর্ণ ভাবে ডিলিট।তাহলে এটাই হলো কম্পিউটারের মাধ্যমে ফেসবুক ডিএক্টিভ করার নিয়ম বা উপায়।


একাউন্ট ডিলিট প্রক্রিয়াকে থামানো যাবে কি ?
হে অবশই পারবেন, কিন্তু কেবল তখন যদি আপনার account delete করার প্রক্রিয়াটি শুরু করার কেবল ৩০ দিন বা তার থেকেও কম সময় হয়েছে।

কারণ, একাউন্ট ডিলিট করার প্রক্রিয়াটি শুরু হওয়ার ৩০ দিন পার হয়ে গেলে, আপনি কোনো ভাবেই নিজের Facebook profile ঘুরিয়ে পাবেননা।৩০ দিন পর আপনার ফেসবুক সম্পূর্ণ রূপে ডিলিট হয়ে যাবে।

কিভাবে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ডিলিট প্রক্রিয়াকে থামাবেন ?

  1. নিজের account delete করার ৩০ দিনের ভিতরে, আবার ফেসবুক একাউন্টে লগইন (login) করতে হবে।
  2. তারপর, আপনাকে cancel deletion এর একটি অপসন দেওয়া হবে, যেখানে আপনার “cancel deletion” বাটনে ক্লিক করতে হবে।
বাস, এবার আবার আপনার ফেসবুক আইডি বা প্রোফাইল এক্টিভেট হয়ে যাবে।

Conclusion

তাহলে বন্ধুরা, ফেসবুক ডিলিট কিভাবে করতে হয় সে সম্পূর্ণ বেপারটা বুঝলেন তো।যদি কিছু না বুঝে থাকেন, তাহলে আমাকে কমেন্ট করুন, আমি আপনাদের সম্পূর্ণটা বুঝিয়ে বলবো।তবে, আমি 

মনে করি, (ফেসবুক ডিলিট করার নিয়ম) কি, এই বিষয়টি নিয়ে আমি আপনাদের সম্পূর্ণ তথ্য সঠিক ভাবে দিয়েছি।এবং, আমি সব সময় আমার ব্লগের রিডার দের, সম্পূর্ণ সঠিক তথ্য সহজ ভাবে বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টায় থাকি।

Guys, If You Need Font Copy And Paste For Instagram ,Twitter ,Fb Like Other Social Media So Click Here this Link.

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post