প্রসেসর কি? প্রসেসর কাকে বলে?প্রসেসর এর গঠন ও কাজ?

প্রসেসর কিঃএকটি প্রসেসর বা "মাইক্রোপ্রসেসর" একটি ছোট চিপ যা কম্পিউটার এবং অন্যান্য ইলেকট্রনিক ডিভাইসে থাকে এর প্রাথমিক কাজটি ইনপুট গ্রহণ করা এবং উপযুক্ত আউটপুট সরবরাহ করা। এটি সাধারণ কাজের মতো মনে হলেও আধুনিক প্রসেসরগুলি প্রতি সেকেন্ডে ট্রিলিয়ন কোটি গণনা পরিচালনা করতে পারে।

    প্রসেসর হ'ল সংহত ইলেক্ট্রনিক সার্কিট যা কম্পিউটার চালায় এমন গণনা সম্পাদন করে। একটি প্রসেসর গাণিতিক, যৌক্তিক, ইনপুট / আউটপুট (আই / ও) এবং অপারেটিং সিস্টেম (ওএস) থেকে পাস করা অন্যান্য প্রাথমিক নির্দেশাবলী সম্পাদন করে। অন্যান্য অন্যান্য প্রক্রিয়া একটি প্রসেসরের অপারেশনের উপর নির্ভরশীল।

    প্রসেসর কি? প্রসেসর কাকে বলে?প্রসেসর এর গঠন ও কাজ?

    পদগুলি প্রসেসর, কেন্দ্রীয় প্রক্রিয়াকরণ ইউনিট (সিপিইউ) এবং মাইক্রোপ্রসেসর সাধারণত প্রতিশব্দ হিসাবে যুক্ত হয়। বেশিরভাগ মানুষ "সিপিইউ" শব্দটির সাথে আজকাল "প্রসেসর" শব্দটি ব্যবহার করেন, এটি প্রযুক্তিগতভাবে সঠিক নয় কারণ সিপিইউ একটি ব্যক্তিগত কম্পিউটারের (পিসি) ভিতরে থাকা প্রসেসরের মধ্যে একটি মাত্র।

    কম্পিউটারের কেন্দ্রীয় প্রসেসর সিপিইউ বা "সেন্ট্রাল প্রসেসিং ইউনিট" নামেও পরিচিত। এই প্রসেসরটি সমস্ত মৌলিক সিস্টেমের নির্দেশাবলী যেমন মাউস এবং কীবোর্ড ইনপুট প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং চলমান অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে পরিচালনা করে। বেশিরভাগ ডেস্কটপ কম্পিউটারগুলিতে একটি ইন্টেল বা এএমডি দ্বারা বিকাশিত একটি সিপিইউ থাকে, যার উভয়ই x86 প্রসেসরের আর্কিটেকচার ব্যবহার করে। মোবাইল ডিভাইস যেমন ল্যাপটপ এবং ট্যাবলেটগুলি ইন্টেল এবং এএমডি সিপিইউ ব্যবহার করতে পারে তবে এআরএম বা অ্যাপলের মতো সংস্থাগুলি দ্বারা বিকাশিত নির্দিষ্ট মোবাইল প্রসেসরগুলিও ব্যবহার করতে পারে।

    আধুনিক সিপিইউতে প্রায়শই একাধিক প্রসেসিং কোর অন্তর্ভুক্ত থাকে, যা নির্দেশাবলী প্রক্রিয়া করার জন্য একসাথে কাজ করে। এই "কোর" একটি শারীরিক ইউনিটে থাকা অবস্থায় তারা প্রকৃতপক্ষে পৃথক প্রসেসর। আসলে, আপনি যদি উইন্ডোজ টাস্ক ম্যানেজার (উইন্ডোজ) বা অ্যাক্টিভিটি মনিটর (ম্যাক ওএস এক্স) এর মতো সিস্টেম মনিটরিং ইউটিলিটি দিয়ে আপনার কম্পিউটারের পারফরম্যান্সটি দেখতে পান তবে প্রতিটি প্রসেসরের জন্য পৃথক গ্রাফ দেখতে পাবেন। দুটি কোর অন্তর্ভুক্ত প্রসেসরগুলিকে ডুয়াল-কোর প্রসেসর বলা হয়, এবং চারটি কোরের সাথে কোয়াড-কোর প্রসেসর বলা হয়। কিছু হাই-এন্ড ওয়ার্কস্টেশনগুলিতে একাধিক কোর সহ একাধিক সিপিইউ থাকে যা একটি একক মেশিনকে আট, বারো বা আরও বেশি প্রসেসিং কোর রাখার অনুমতি দেয়।

    কেন্দ্রীয় প্রক্রিয়াকরণ ইউনিট ছাড়াও, বেশিরভাগ ডেস্কটপ এবং ল্যাপটপ কম্পিউটারগুলিতে একটি জিপিইউ অন্তর্ভুক্ত থাকে। এই প্রসেসরটি বিশেষত গ্রাফিক্স রেন্ডারিংয়ের জন্য ডিজাইন করা হয়েছে যা মনিটরের আউটপুট আর ডেস্কটপ কম্পিউটারগুলিতে প্রায়শই একটি জিপিইউ থাকে এমন একটি ভিডিও কার্ড থাকে, যখন মোবাইল ডিভাইসগুলিতে সাধারণত একটি গ্রাফিক্স চিপ থাকে যা মাদারবোর্ডে সংহত হয়। সিস্টেম এবং গ্রাফিক্স প্রসেসিংয়ের জন্য পৃথক প্রসেসর ব্যবহার করে কম্পিউটারগুলি আরও দক্ষতার সাথে গ্রাফিক-নিবিড় অ্যাপ্লিকেশনগুলি পরিচালনা করতে সক্ষম হয়।

    প্রসেসর কাকে বলে?

    প্রসেসর হ'ল সিপিইউর অংশ।Processor বা "মাইক্রোপ্রসেসর" একটি ছোট চিপ যা Computerএবং অন্যান্য Electronic ডিভাইসে থাকে। এর প্রাথমিক কাজ Input গ্রহণ করা এবং উপযুক্ত আউটপুট সরবরাহ করা।

    সিপিইউ হ'ল Microprocessor।অনেকের প্রশ্ন থাকে যে, প্রসেসর কি দিয়ে তৈরি-একটি মাইক্রোপ্রসেসর কয়েক মিলিয়ন ট্রানজিস্টর (Trangister) সমন্বয়ে গঠিত একটি সংহত সার্কিট। তবে, সমস্ত মাইক্রোপ্রসেসরগুলি সিপিইউ কেন্দ্রীয় নয় সেন্ট্রাল প্রসেসিং ইউনিট (সিপিইউ) একটি চিপ যা কম্পিউটারের মস্তিষ্ক হিসাবে কাজ করে।

    এটি Software এবং Hardware এর মদ্ধকার হওয়া গতিবিধি কে বোঝার ক্ষমতা রাখে যার সাহায্যে আমরা কম্পিউটার এ যে কম্যান্ড দিয় সেটিকে বুঝে বা প্রসেসিং করে তার আউটপুট প্রদান করে। আপনি আপনার কম্পিউটারে যা করেন তা আপনার প্রসেসরের দ্বারা প্রক্রিয়া করতে হবে। আপনি যখনই কোনও ফোল্ডার খুলবেন তখন আপনার প্রসেসরের প্রয়োজন  আপনি যখন কোনও শব্দ নথিতে টাইপ করেন, তখন আপনার প্রসেসরেরও প্রয়োজন।

    আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারের প্রসেসর যত ভালো উন্নত মানের হবে ততোই ভালো এবং যদি আপনার কম্পিউটার অথবা মোবাইলের প্রসেসর বাজে low কোয়ালিটির হয় তারমানে আপনার মোবাইল বা কম্পিউটার বেকার -উদাহরণস্বরূপ ধরুন- আপনার গাড়ি আছে, যদি আপনার গাড়ির ইঞ্জিন (Ingine) ভালো হয় তাহলে গাড়ি বেশিদিন চলবে, বারবার খারাপ হবে না, স্পিড ভালো দেবে,  সবকিছু ঠিকমতো চলবে

    আর যদি আপনার গাড়ির ইঞ্জিন ভালো না হয় তাহলে আপনার গাড়ি বারবার বন্ধ হবে, slow চলবে,  খারাপ হয়ে যাবে, নানা রকমের সমস্যা দেখা দেবে। ঠিক একই রকম ভাবে এখানে যেমন একটি গাড়ির জন্য ইঞ্জিন ভালো উন্নত মানের দরকার তেমন মোবাইলের জন্য ঠিক আপনার প্রসেসরটি এভাবে কাজ করে আপনার Processor যদি ভাল হয় তাহলে আপনার Mobile ভালো চলবে স্লো (Slow) হবে না বেশিদিন চলবে, মোবাইল গরম হবে না ইত্যাদি।

    ফ্রেন্ডস আশাকরি আপনারা জেনে গেছেন যে প্রসেসর কি এবং কাকে বলে

    প্রসেসর কোর (core) কি

    প্রসেসর কোর কি:-একটি Core একটি সিপিইউর অংশ যা নির্দেশাবলী গ্রহণ করে এবং সেই নির্দেশাবলীর উপর ভিত্তি করে গণনা বা ক্রিয়া সম্পাদন করে। একটি নির্দেশাবলী একটি সেট একটি সফ্টওয়্যার প্রোগ্রাম একটি নির্দিষ্ট ফাংশন সম্পাদন করতে পারবেন। প্রসেসর এ তার Capacity অনুসারে আলাদা আলাদা কোর থাকে। প্রসেসরগুলির একটি  Core বা একাধিক Core থাকতে পারে। 2 কোর সহ একটি প্রসেসরকে ডুয়াল-কোর প্রসেসর বলা হয়, চারটি CORE কোয়াড-কোর ইত্যাদি আটটি কোর পর্যন্ত। একটি প্রসেসরের যত বেশি কোর থাকে, একই সাথে Processor অধিক নির্দেশাবলী পেতে এবং প্রসেস করতে পারে, যা কম্পিউটারকে আরও দ্রুত করে তোলে।

    Core কিছুটা এভাবে কাজ করে যেমন - আপনি কম্পিউটারে কোন একটি কাজ করছেন যেটি করতে আপনার সময় (Time) লাগবে প্রায় 10 ঘণ্টা এবং সেই কাজটাই যদি আপনার একটি বন্ধুকে ডেকে আনা হয় এবং দুজনে মিলে করা হয় তাহলে কাজটি করতে 5 ঘন্টা লাগবে। মানে কাজটি তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে এবং আপনি যদি আরো দুই বন্ধুকে ডেকে আনেন হলে আপনার কাজটি আরো তাড়াতাড়ি পূর্ণ হয়ে যাবে। কোর কিছুটা এভাবে কাজ করে, আপনি যত বেশি কোর ব্যবহার করবেন ততই আপনার কাজের স্পিড বেড়ে যাবে আপনার কম্পিউটার এবং মোবাইলে।

    ফ্রেন্ডস আশাকরি বুঝতে পেরেছেন যে প্রসেসর কোর কি কাকে বলে বা এর কাজ কি। (প্রসেসর কোর (core) কি?)

    প্রসেসর এর প্রকারভেদ

    অক্টা (Octa) মানে আট আর কোয়ার্ড (Quad) মানে চার। একটি প্রসেসর (CPU) এর মধ্যে কতটি কোর আছে তার উপর ভিক্তি করে এমন নামকরন। তাহলে অক্টাকোর প্রসেসরে আটটি কোর থাকে এবং কোয়ার্ডকোর প্রসেসরে চারটি কোর থাকে। আর ১.৭GHz বা ২.৫GHz হল প্রসেসরের ক্লক স্পিড। ক্লক স্পিড হল, একটি প্রসেসর এক সেকেন্ডে কি পরিমান ক্লক সার্কেল সম্পন্ন করতে পারে তার পরিমান।

    অক্টাকোর (১.৭GHz) আর কোয়ার্ডকোর (২.৫GHz) এর মধ্যে ক্লক স্পিড যদি কাছাকাছি থাকে তবে অক্টাকোরই ভাল হবে। র‌্যাম (RAM) এর হিসাব আলাদা। র‌্যাম একটি সিস্টেমের অস্থায়ী স্মৃতি। তারমানে একটি সিস্টেম (কম্পিউটার, মোবাইল বা যা কিছু) চালানোর সময় তার অস্থায়ী কিন্তু দরকারি ফাইলগুলি সে র‌্যামে লোড করে নেয় এবং কাজে শেষে মুছে ফেলে। র‌্যাম যত বেশি হবে, সিস্টেমটি তত ভাল ভাবে চলবে। 

    র‌্যাম একই রেখে (অর্থাৎ ২ জিবি) আপনি যদি প্রসেসরের হিসাব করেন, তবে অক্টাকোরই ভাল হবে। তবে কোয়ার্ডকোরেও কোন সমস্যা নেই। ভাল গ্রাফিক্সের গেম খেলতে গেলে অক্টাকোরে পারফরমেন্স ভাল পাবেন।

    প্রশ্নঃগেম খেলার জন্য কোন প্রসেসর ভালো?

    উত্তরঃ-সিংগেল কোর প্রসেসর

    সিংগেল কোর প্রসেসর

    সিংগেল কোর প্রসেসর এর সাথে যদি ২৫৬ এমবি কিংবা ৫১২ এমবি র‌্যাম হয় তাহলেও কোন এইচডি গেমই ঠিক মত খেলতে পারবেন না। যদি ১ জিবি র‌্যামও হয় তবুও পারবেন না। সব ধরনের গেমই ল্যাগ করবে। (আমি Samsung Galaxy S এ ট্রাই করে দেখেছি।কোন গেম খেলেই শান্তি তো দূরে থাক ভালোও লাগে নাই। এই ফোনে কিন্তু ১ জিবি র‌্যাম। সমস্যা হল সিংগেল কোর প্রসেসর।)

    ডুয়াল কোর প্রসেসর

    ডুয়াল কোর Processor মূলত দুটি কোর এর প্রসেসর যেখানে কোন কাজ প্রসেসর প্যারালাল এ করে থাকে। যার কারনে সিংগেল কোর প্রসেসর এর চেয়ে বেশি শক্তি পাওয়া যায়।) আপনার ফোনের র‌্যাম যদি ৫১২ এমবি হয় আর যদি প্রসেসর ডুয়াল কোর হয় তাহলে আপনার ফোনে GTA Vice City, MC3 তে কোন প্রকার ল্যাগ বা হ্যাং পাবেন না। কিন্তু GTA San Andress, MC4, NOVA 3 বা এর চেয়ে হাই কোয়ালিটি গেম খেললে অবশ্যই ল্যাগ পাবেন। Asphalt 8 এ বেশ ভালোই ল্যাগ পাবেন। কিন্তু যদি ডুয়াল কোর প্রসেসর এর সাথে ১ জিবি র‌্যাম হয় তাহলে আপনার ফোনে প্রায় সব ধরনের গেমই ল্যাগ ছাড়া চলবে। Samsung Galaxy S2 তে পরীক্ষা করা।

    কোয়াড কোর প্রসেসর?

    কোয়াড কোর প্রসেসর এর কোর সংখ্যা হল ৪ টি। যার কারনে ডুয়াল কোর প্রসেসর এর চেয়েও বেশি শক্তি উৎপন্ন করে। এখন আপনার ফোনে যদি কোয়াড কোর প্রসেসর এর সাথে ৫১২ এমবি র‌্যাম থাকে তাহলে আপনি প্রায় সব গেম ল্যাগ বিহীন অবস্থায় খেলতে পারবেন।যেমনঃ GTA VICE CITY, GTA SAN ANDRESS, NFS MOST WANTED, NFS HOT PARSUITE, ETC..

    এই গেম গুলো এই প্রসেসর আর র‌্যাম এ পরিক্ষিত। আমি এই সব গেম Symphony W69Q এর ৫১২ র্যাম ভার্সন এ খেলেছি। তাই আমি এই কথা গুলো বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে বলছি। আর যদি আপনার ফোন কোয়াড কোর প্রসেসর আর ১ জিবি র্যাম হয় তাহলে তো লাইফ পুরা জিংগালালা। মানে এই ফোনে আপনি প্রায় সব ধরনের গেম কোন প্রকার ল্যাগ ছাড়াই খেলতে পারবেন। আমার primo Gm Mini তে টেস্ট করা। যেমনঃ san andress, NOVA 3, MC4, MC5, Backstab HD

    হেক্সা কোর এবং অক্টাকোর

    এই সব প্রসেসরের ফোন গুলোতে গেমিং এ কোন সমস্যা থাকে না। অক্টাকোর প্রসেসর এর ফোন কিনলে আপনাকে আর গেমিং পার্ফমেন্স নিয়ে চিন্তা করতে হবে না।এই প্রসেসর গুলো মূলত গেমিং এর জন্য পারফেক্ট। তারপরেও যদি কোন সমস্যা হয় গেমিং এ তাহলে আমাদের  কমেন্ট  করে জানাতে  পারেন।

    আমাদের শেষ কথা- তাহলে বন্ধুরা, আশা করছি আপনারা কম্পিউটারের প্রসেসর এর বিষয়ে সবটা বুঝতে পেরেছেন। “প্রসেসর কি” বা “প্রসেসর কাকে বলে“, (what is a processor in Bangla) বিষয়টা নিয়ে যদি আপনাদের মনে কোনো ধরণের প্রশ্ন বা পরামর্শ রয়েছে, তাহলে অবশই নিচে কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন। তাছাড়া, আজকের আমাদের আর্টিকেল “about processor in Bengali” যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে আর্টিকেলটি অবশই শেয়ার করবেন।

    By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

    Post a Comment

    By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

    Post a Comment (0)

    Previous Post Next Post