টেলিগ্রাম অ্যাপঃ কিভাবে Telegram App ইন্সটল করবেন?

আজকের দিনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলি আমাদের জীবনের একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। আপনি না চাইলেও আপনার অবশ্যই একটি সামাজিক অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করা উচিত। কারণ অ্যাপ্লিকেশনগুলি আপনার কাজ এবং জীবনে একটি বড় ভূমিকা পালন করে।

আজ ইন্টারনেটে অনেক সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ রয়েছে। তবে একটি অ্যাপ রয়েছে যা ইউজফুল হওয়া সত্ত্বেও কিছুটা উপেক্ষা করা হয়েছে তা হল (Telegram app)টেলিগ্রাম অ্যাপ

এই পোস্টে আপনি টেলিগ্রাম অ্যাপ্লিকেশন সম্পর্কে জানতে পারবেন, টেলিগ্রাম কি? টেলিগ্রাম ব্যবহার, বাংলায় টেলিগ্রামের তথ্য, টেলিগ্রাম অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারেন  এবং এর মালিক। প্রথমে দেখা যাক টেলিগ্রাম কি?

টেলিগ্রাম অ্যাপ কি? | What is Telegram app? 

টেলিগ্রাম অ্যাপঃ কিভাবে Telegram App ইন্সটল করবেন?
Telegram App

টেলিগ্রাম অ্যাপ্লিকেশন” ফ্রিওয়্যার ক্রোস-প্লাটফর্ম ক্লাউড বাছেড ইন্সট্যান্ট মেসেজিং সফটওয়্যার এবং অ্যাপ্লিকেশন সার্ভিস। অ্যাপটিতে End-to-end এনক্রিটেট ভিডিও কলিং,VoIP, ফাইল শেয়ারিং থেকে আর অন্যান্য সুবিধা গুলা পাবেন। “টেলিগ্রাম লন্চ হয় ১৪ আগস্ট ২০১৩ তে আইফোনের জন্য পরে ১৩ অক্টোবর ২০১৩ তে অ্যান্ড্রয়েডের জন্য লন্জ হয়।

File Nameটেলিগ্রাম অ্যাপ
Size 25.MB
Version Requairment4.1 Android
CostFree
Total Downloads 500M+
DeveloperEditors' Choice
Last Update13 Day Ago

টেলিগ্রাম অ্যাপ একটি ফ্রী অনলাইন চ্যাটিং অ্যাপ্লিকেশন। এই অ্যাপটি মেসেজ গুলা খুব দ্রুত সেন্ড করে অন্যান্য সব মেসেজিং সফটওয়্যার থেকে। টেলিগ্রামে আপনি আনলিমিটেড High রেজুলেশন Movie,ভিডিও গান, Hd অডিও ফাইল, পা্র্সোনাল ডুকুমেন্ট গুলা এক Share ...!

এটি ক্লাউডফিয়ার উপর ভিত্তি করে, অর্থাৎ এই অ্যাপ্লিকেশনটির ডেটা আপনার ডিভাইসের পরিবর্তে একটি টেলিগ্রাম সার্ভারে সংরক্ষণ করা হয়। এখন পর্যন্ত এই অ্যাপটি 400 মিলিয়নেরও বেশি বার ডাউনলোড করা হয়েছে।

টেলিগ্রাম অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড লিংক | Telegram app Download link?

টেলিগ্রাম অ্যাপস এনক্রিপশন ব্যবহার করায় এই অ্যাপ্লিকেশনটি দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে ওঠে যা যেকোনো উইজার জন্য নিরাপদ, এটা ডাউনলোড করা অতি সহজ আপনারা সরাসরি (Telegram.org) অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে Android ভার্সন বা IOS ভার্সন সহজে ইন্সটল করে নিতে পারেন। অথবা আমি নিচে লিংক দিয়ে দিলাম সেখানে থেকেও ডাউনলোড বা ইনস্টল করে নিতে পারেন। 

কিভাবে টেলিগ্রাম অ্যাপ ইন্সটল করবেন?| Install telegram step by step?

টেলিগ্রাম অ্যাপ্লিকেশন আপনার মোবাইলে ইন্সটল করা একদম সহজ। চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক কিভাবে টেলিগ্রাম এ্যাপ একাউন্ট তৈরি করতে হয় বা ইনস্টল করতে হয়-

  • ১.প্রথমে আপনার মোবাইলে গুগল প্লে স্টোর ওপেন করুন। 
  • ২.গুগল প্লে-স্টোরে সার্চ বারে "Telegram" লিখে সার্চ করুন। 
  • ৩.প্রথম যে অ্যাপটি প্রদর্শন হবে সেটা "install" বাটনে ক্লিক করুন।
  • ৪.বাছ! টেলিগ্রাম অ্যাপটি আপনার মোবাইলে ইন্সটল শুরু হয়ে যাবে। 
  • ৫. এখন "Open"বাটনে ক্লিক করুন।  

এখন কিভাবে টেলিগ্রামে অ্যাকাউন্ট তেরি করব?

  1. প্রথমে আপনার মোবাইলে থেকে টেলিগ্রাম অ্যাপ্লিকেশন "open" করুন। 
  2. তারপর পপ আপ আসা "Continue"বাটনে ক্লিক করুন।
  3. তারপর আপনার "country"সিলেক্ট করুন। 
  4. এখন আপনার মোবাইলে নম্বর দিন যে নম্বরটিতে আপনি টেলিগ্রাম এ্যকাউন্ট খুলতে চাচ্ছেন। 
  5. এখন "Next" বাটনে ক্লিক করুন। 
  6. তারপর আপনার ফোনে একটা পিন ভেরিফাই করার জন্য পিন যাবে সে নম্বর ৪ ডিজিট এখানে বসান 
  7. তারপর "Continue"বাটনে ক্লিক করুন।
  8. বাছ!! আপনার মোবাইলে টেলিগ্রাম অ্যাপটি মেসেজিং এবং ভয়েস কলিং ভিডিও চ্যাট গ্রুপ কলিং করার জন্য সম্পুর্নভবে তৈরি।

টেলিগ্রাম এ্যাপস সম্পর্কে তথ্যঃ

সবার আগে জেনে নিন টেলিগ্রামটি কে করেছেন। টেলিগ্রামটি দুই ভাই নিকোলাই এবং পাভেল দুরভ প্রযোজনা করেছিলেন এবং উভয়েই আজ টেলিগ্রাম অ্যাপের মালিক।

টেলিগ্রাম কখন শুরু হয়েছিল? এটি ২০১৩ সালে বাজারে এসেছিল।

টেলিগ্রাম অ্যাপটি কি ভারতীয়? না, এটা ভারতীয় নয়। তাহলে টেলিগ্রাম অ্যাপটি কোন দেশ? এটি রাশিয়ায় নির্মিত হয়েছিল, তবে পরে এটি কিছু নিয়মের কারণে জার্মানি এবং লন্ডনে স্থানান্তরিত হয়েছিল। এবং বর্তমানে তার অফিস দুবাই ভিত্তিক।

টেলিগ্রামের সফটওয়্যার ইতিহাসঃ

বড় ভাই নিকোলাই সফটওয়্যারটির ভিত্তি স্থাপন করেছিলেন এবং পাওয়েল তাকে আর্থিকভাবে সহায়তা করেছিলেন। আগস্ট 2013 এ, টেলিগ্রাম প্রথমবারের জন্য আইওএসের জন্য চালু হয়েছিল। এবং অক্টোবর ২০১৩ সালে, টেলিগ্রাম অ্যান্ড্রয়েডেও চলতে শুরু করেছে।

২০১৩ সালে টেলিগ্রামের এক লাখ গ্রাহক ছিল। ফেব্রুয়ারী 2016 এর মধ্যে, তিনি 100 মিলিয়ন গ্রাহক ছিলেন এবং প্রতিদিন 150 মিলিয়ন বার্তা বিনিময় করেছিলেন। মার্চ 2018 এর মধ্যে 200 মিলিয়ন গ্রাহক ছিল।

১৪ ই মার্চ, 2019-এ পাভেল দুরভ বলেছেন যে 24 ঘন্টার মধ্যে 30 লক্ষ নতুন গ্রাহক টেলিগ্রামে সাইন আপ করেছেন, যা একটি রেকর্ড হয়ে গেছে। এবং টেলিগ্রাম ফেসবুক এবং অন্যান্য সামাজিক ওয়েবসাইটের মতো চলতে শুরু করে। ২০২০ সালের এপ্রিলে এর গ্রাহক সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৪০০ মিলিয়নে।

টেলিগ্রাম একটি সামাজিক অ্যাপ্লিকেশন যা অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশন থেকে একেবারে পৃথক। এর বৈশিষ্ট্যগুলি এমন যেগুলি এমনকি অনেক ভাল অ্যাপেও নেই। 2013 থেকে এখন অবধি এটি অনেকগুলি আপডেট পেয়েছে। আসুন টেলিগ্রামের মূল বৈশিষ্ট্যগুলি দেখি।

এটি আপনার ফোন নম্বরটিতে চলে এবং এতে আপনি একসাথে একাধিক নম্বর ব্যবহার করতে পারেন।

আপনি আপনার প্রোফাইল ছবিগুলির একটি হোয়াটসঅ্যাপ এবং ফেসবুকে রাখেন, আপনি এতে একের বেশি রাখতে পারেন।

এটিতে গোপন চ্যাটের সুবিধা রয়েছে যা আপনি কারও সাথে বেনামে কথা বলতে পারেন। আপনার চ্যাটগুলি কোনও সার্ভারে সংরক্ষণ করা হবে না।

আপনি নিজের উপায়ে টেলিগ্রাম অ্যাপের চেহারা পরিবর্তন করতে পারেন।

  • এটিতে বটের সুবিধাও রয়েছে।
  • আপনি নাইট মোড সহ টেলিগ্রাম ব্যবহার করতে পারেন।
  • আপনি নিজের অবস্থান কারও সাথে শেয়ার করতে পারেন।
  • এটিতে নতুন ধরণের চ্যাট টুল রয়েছে যা আপনি আপনার চ্যাটটি আরও সহজ করতে ব্যবহার করতে পারেন।
  • আপনি এটিতে আপনার গুরুত্বপূর্ণ মেসেজগুলি সংরক্ষণ করতে পারেন।
  • আপনি টেলিগ্রাম চ্যানেল ব্যবহার করে এক জায়গা থেকে অনেকগুলি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেতে পারেন।
  • এটিতে আপনার চ্যাটগুলি সম্পাদনা করতে পারেন।

আমাদের শেষ কথাঃ

বন্ধুরা, আশা করি আপনি বুঝতে পারছেন, পোস্টটি ভালো লাগল বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমাদের (অনলাইন কাজ) ওয়েবসাইট সর্বশেষ আপডেট পেতে আমাদের সাইটটি সাবস্ক্রাইব করতে পারেন নতুন নতুন সব পোস্ট পাওয়ার জন্য ভালো থাকবেন।


By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post