সিমেন্টর খুটির ব্যবসা | সিমেন্টের পিলার তৈরির ব্যবসা | অল্প টাকা ব্যবসা

বন্ধুরা আজকের “ব্যবসার আইডিয়াটি” অত্যাধিক সম্মানির সফল একটি ব্যবসা।এ ব্যবসার মাধ্যমে আপনি সহ আরও বহু বেকারদের কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়ে ওঠবে।

ব্যবসাটির ভবিষ্যৎ দিন দিন বেড়েই চলেছে। সুতরাং (অল্প পুঁজি দ্বারা অধিক লাভের ব্যবসা গুলির মধ্যে উন্নতম ব্যবসার আইডিয়া। চালুন শুরু করি।

সিমেন্টের খুঁটি তৈরি ব্যবসা কিভাবে শুরু করবেন?

সিমেন্টের খুঁটি অথবা পিলার তৈরি ব্যবসা, আগেই বলেছিলাম ব্যবসাটি অল্প পুঁজিতে শুরু করা যায়। অল্প পুঁজি হলেও এক লক্ষ টাকা পুঁজি “ইনভেস্ট”করতে পারলে অনেকটাই ভালো।এছাড়াও ৫০ হাজার টাকা আপনি দিয়ে শুরু করতে পারবেন।

সিমেন্টর খুটির ব্যবসা | সিমেন্টের পিলার তৈরির ব্যবসা | অল্প টাকা ব্যবসা

এ (ব্যবসাটির আয়, একজন মানুষ এক একটি আয়ের কথা বলেছে,তবে সবার আয়ের একটি গড় হিসাব হতে পারে মাসে ৩০ হাজার টাকারও অধিক)। 

সিমেন্টের পিলার তৈরি আসবাবপত্রঃ

প্রথমতঃ-(সিমেন্টর খুটি তৈরি ব্যবসার জন্য কিছু জায়গা কমপক্ষে এক একর হলে ভালো হয়,সাথে কিছু লোক বা শ্রমিক এবং কিছু মেশিন কিনতে হয়। মেশিন গুলো আপনি আপনার স্থানীয় বাজারেই পেয়ে যাবেন।

সম্ভাব্য পুঁজি ৫০০০০ টাকা থেকে ১০০০০০ টাকা পর্যন্ত
সম্ভাব্য লাভ: মাসে ৩০ থেকে ৩৫ হাজার টাকা আয় করা সম্ভব।
যোগ্যতা বিশেষ কোন যোগ্যতার প্রয়োজন নেই। দক্ষ রাজমিস্ত্রির সাথে ২ থেকে ৫ দিন কাজ করলেই বিষয়টি শিখে নেয়া যায়।

এ ছাড়াও বেশ কিছু জিনিস লাগে যা আপনাকে তৈরি করে নিতে হবে।দেশের বিভিন্ন স্থানে পিলারে মিস্ত্রি আছে,এমন একজন “মিস্ত্রী” কে ব্যবসাটি দ্বার করানের আগেই কাজে লাগিয়ে নিন,সেই আপনাকে সব বলে দিবে। 

প্রস্তুত প্রনালীঃ 

সিমেন্টের খুঁটি বাইন্ডিং তার ও রডের রিং দিয়ে বেধে দিতে হয়। তারপর ইট অথবা পাথর কুচির সাথে সিমেন্ট বালি ও পানি মিশিয়ে ডালতে হবে ফ্রেমে।

অবশ্যই পড়ুন-

দশ থেকে ১৫ ঘন্টা পর জমাট বেধে গেলে রদে শুকিয়ে নিলে তৈরি হয়ে গেল সিমেন্টের খুঁটি। 

বাজার চাহিদাঃ 

সাধারণত পিলার ক্রেতারা নিজেরাই কিনে নিয়ে যান। তবে প্রতিদিন এর বিক্রি নাও হতে পারে।আবার দেখা যায় একদিনে এক শ পিছ বিক্রি হয়ে গেছে। গ্রীষ্ম ও শীত কালে এর চাহিদা একটু বেশি।এসময় মানুষ ঝড় তুফান থেকে বাচতে ঘর মেরামত করেন।

তবে চিন্তার কিছু নাই অন্য সময়ও এর চাহিদা রয়েছে। 

সিমেন্ট খুঁটি তৈরি ব্যবসার উইক পয়েন্টগুলাঃ

  • প্রথমত ব্যবসাটির জন্য অধিক জায়গার প্রয়োজন। 
  • অধিক লোক রাখতে হয় বেচা বিক্রি না হলে নিজের পকেট থেকে বেতন পরিশোধ করতে হবে। 
  • শীত ও গ্রীষ্ম ছাড়া এর বেচা-বিক্রি একটু কমে যায়। 

সব মিলে বলা যায় সিমেন্ট পিলার তৈরি ব্যবসাটি খারাপ না।বন্ধুরা আমাদের ওয়েবসাইটে আপনাদের ব্যবসা সম্পর্কে একদম সঠিক তথ্য প্রদান করব।কোন ব্যবসার জুকি কম অথবা জুকি বেশি এসব ব্যবসার সঠিক আয় সর্ম্পকে আলোচনা করব।

শেষ কথাঃ

বন্ধুরা, আশা করি আপনি বুঝতে পারছেন, পোস্টটি ভালো লাগল বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমাদের (অনলাইন কাজ) ওয়েবসাইট সর্বশেষ আপডেট পেতে আমাদের সাইটটি সাবস্ক্রাইব করতে পারেন নতুন নতুন সব পোস্ট পাওয়ার জন্য ভালো থাকবেন। 

📝রাইটারঃ মোঃরকি ইসলাম 

📃CEO OF ONLINEKAJ.COM

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post