খাবার হোটেলের ব্যবসার আইডিয়া | রেস্টুরেন্টের ব্যবসা | অল্প পুঁজি ব্যবসার আইডিয়া

খাবারের দোকানের ব্যবসা:-রেস্টুরেন্ট ব্যবসা সম্পর্কে আমরা কম বেশি সবাই জানি, যে পৃথিবীর সবচেয়ে "সফল ব্যবসার" মধ্যে এটি একটি অন্যতম।

তবে প্রতিনিয়ত দেখা যায় বহু “রেস্টুরেন্টে” রয়েছে যারা প্রথম বছরেই তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে।তাই আজ আমরা আলোচনা করব- এর কারনসমুহ,এবং এ ব্যবসাটি কিভাবে সফল ভাবে চালিয়ে যাওয়া যায় তা নিয়ে। 

খাবার হোটেলের ব্যবসার আইডিয়া কিছু পয়েন্ট!

খাবারের দোকানের ব্যবসা:-রেস্টুরেন্ট ব্যবসা সম্পর্কে আমরা কম বেশি সবাই জানি, যে পৃথিবীর সবচেয়ে "সফল ব্যবসার" মধ্যে এটি একটি অন্যতম।

বন্ধুরা নিচে কিছু পয়েন্ট তুলে ধরা হলে যেগুলা ফলো করলে আপনিও এই রেস্তোরাঁ ব্যবসায় সফলতা অর্জন করতে পারবেন। চলুন শুরু করি-

).কত আয় করা সম্ভবঃ

এ ব্যবসা থেকে আপনি প্রতি মাসে দশ লক্ষ টাকাও আয় করতে পারবেন।তবে আমাদের যাচাইকৃত সবচেয়ে বেশি হোটেল ব্যবসায়ি বলেছেন তাদের মাসিক আয় দের থেকে দু লক্ষ টাকা।  

আপনি কেমন আয় করতে চান তা নির্ভর করে আপনার “ইনভেস্ট” এর উপর। দোয়া করে আটির্কেলটি সম্পুর্ন পুড়ুন। এ ব্যবসাটি শুরু করতে আপনাকে ১-১০লক্ষ টাকা ইনভেস্ট করা লাগতে পারে। 

).স্থান নির্বাচনঃ

ব্যবসাটির প্রথম খরচ দোকান ঘর ও সিকিউরিটি বাবদ।ব্যবসাটির জন্য এমন একটি স্থান নির্বাচন করুন যেখানে অধিক লোক সমাগন রয়েছে। এ ব্যবসাটির বর্থতার কারন হল সঠিক স্থান বাচাই না করা। 

যদি “পুঁজি অল্প” থাকে তাহলে এমন স্থান নির্ধারন করুন যেখানে বর্তমান লোক সমগম কম তবে ভবিষ্যৎতে বৃদ্ধি পাবে।

).গ্রাহক সেবা-রেস্টুরেন্ট ব্যবসার জন্য!

আপনার হোটেলে যদি গ্রাহক সন্তুষ্টি না হয় তাহলে তৃতীয় বার আপনার হোটেলে মুখ ফেরাবে না।তাই সব সময় চেষ্টা করবেন হোটেলের খাবার পরিবেশন বা স্বাদ নিয়ে কোন কম্প্লেইন না আসে। এবং গ্রাহকদের সাথে সব সময় ভালো ব্যবহার করতে হবে। 

).খাবারে গুনগত মান সম্পুর্ন রাখা!

খাদ্যের মান অবশ্যই ভালো করবেন,চেষ্টা করবেন বাহির থেকে সুন্দর বার্বুচি রাখার।সব থেকে ভালো হয় যদি নিজে রান্না করতে পারেন।

অবশ্যই পড়ুন-

কারন যখনি আপনার বার্বচি পরিবর্তন হবে খাবারের মান ভিন্ন হয়ে যাবে। তাই নিজে শিখে রাখুন। রান্নার স্কুলে ভর্তি হয়ে নিজের রান্নার স্কিল বাড়াতে পারেন। 

).খাবারের মুল্য!

সব সময় চেষ্টা করবেন আপনার খাবারের মুল্য একটু বেশি রাখতে যা বেয় হবে তার তিন গুণ দাম বেশি রাখুন। কারন বর্তমান যুগে মানুষ সস্তাকে অসস্তি মনে করে।

).হোটেলের ডেকোরেশন!

রেস্টুরেন্টে ডেকোরেশন ভালো রাখবেন কারন আমার দেখা এমন বহু রেস্টুরেন্ট আছে যাদের “উপরে ফিট ফাট নিচে সদর ঘাট” উক্তিটি সুনেছেন হয়ত।তবুও তাদের আয় দেখলে মন বলে হায়। এবার যে টপিকটির কথা বলবো সেটি সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ টপিক যা আপনাট রেস্টুরেন্টকে গড়ে তুলবে সাফল্যময়ী একটি প্রতিষ্ঠান। 

).পার্সেল!

এমন কিছু দোকানদার খুজে বের করুন যার তাদের দোকান অথবা প্রতিষ্ঠানে মিলাদের আয়োজন করবে। তাদের সাথে যোগাযোগ করুন এবং যে ভাবেই হক খাবার আপনি সরবরাহ করুন। 

ছরিয়ে দিন আপনার হোটেলের খাবারে পাকেট সবার ঘরে ঘরে।

আমাদের শেষ কথাঃ

বন্ধুরা, আশা করি "রেস্টুরেন্টে ব্যবসা" সম্পর্কে আপনি বুঝতে পারছেন, পোস্টটি ভালো লাগল বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমাদের (অনলাইন কাজ) ওয়েবসাইট সর্বশেষ আপডেট পেতে আমাদের সাইটটি সাবস্ক্রাইব করতে পারেন নতুন নতুন সব পোস্ট পাওয়ার জন্য ভালো থাকবেন।

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment

By commenting you acknowledge acceptance of Whatisloved.com-Terms and Conditions

Post a Comment (0)

Previous Post Next Post